লাউ কেনার অজুহাতে বাড়িতে ঢুকে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা

শেয়ার করুনঃ

অনলাইন ডেস্ক :: নওগাঁর মান্দায় সাত বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টায় আমান মোল্লা (৬০) নামের এক বৃদ্ধকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (১৬ নভেম্বর) বিকেলে উপজেলার ভোলাবাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

আমান মোল্লার বাড়ি উপজেলার মৈনম-বর্দ্দপুর মোল্লা পাড়া এলাকায়। তিনি একজন তরকারি ব্যবসায়ী।

শিশুর পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শিশুর বাবা-মা সেলাই মেশিন মেরামত করতে নওগাঁ শহরে যান। তারা দুই বোন বাড়িতে খেলা করছিল। সোমবার দুপুর ২টার দিকে বৃদ্ধা আমান মোল্লা লাউ কেনার জন্য তাদের বাড়িতে গিয়ে তার মায়ের নাম ধরে ডাকছিলেন। ডাকাডাকির পর কোনো সাড়া না পাওয়ায় বাড়িতে প্রবেশ করেন। বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে শিশুটির ছোট বোনকে বাড়ির বাইরে যেতে বলে শিশুটিকে ঘরে ঢুকিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এ সময় আরেক প্রতিবেশী শিশুটির মাকে ডাকতে গিয়ে দেখেন বাড়ির দরজা খোলা এবং ঘরের ভেতরে শিশুটির চিৎকার শোনেন। প্রতিবেশীকে দেখে বৃদ্ধ আমান মোল্লা সটকে পড়েন। পরে শিশুটিকে উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নেয়া হয়।

এ ঘটনায় মান্দা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মতিয়ার রহমান, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমান, ইন্সপেক্টর (তদন্ত) জাহিদ হোসেন এবং এসআই নজরুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমান বলেন, শিশুটির বাবা বাদী হয়ে আমান মোল্লাকে আসামি করে থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন। আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।